ইম্যাক্স : সি প্রোগ্রামিং এ অটো ইন্ডেন্টেশন

.emacs ফাইলে নিচের লাইন যোগ করলে প্রত্যেকবার এন্টার কী চাপার পর অটোমেটিক ইন্ডেন্টেশন হয়ে যাবে।

(require 'cc mode)(define-key c-mode-base-map (kbd "RET") 'newline-and-indent)

ইম্যাক্সে C-j চেপে অটো ইন্ডেন্টেশন করা হয়। উপরের লাইন লেখার ফলে আপনি যখন .c এক্সটেনশনযুক্ত কোন ফাইল এডিট করবেন,তখন প্রতিবার এন্টার চাপলে তা C-j চাপার কাজ করবে,অর্থাৎ অটো ইন্ডেন্টেশন হবে।

Advertisements

ইম্যাক্স : ব্যাকগ্রাউন্ড কালো করা

.emacs ফাইলে নিচের তিনটি লাইন যোগ করলেই হবে।

(set-background-color "black")
(set-foreground-color "white")
(set-cursor-color "white")

এই লাইন তিনটির কাজ যথাক্রমে ব্যাকগ্রাউন্ড কালো,ফন্ট সাদা এবং কারসর সাদা করা। আপনি চাইলে অন্য কালারও করতে পারেন।

Poll

ইম্যাক্স : কনফিগারেশন ফাইল বা .emacs যেখানে পাবেন

প্রথমে Alt-x eshell চাপুন। তখন ইম্যাক্সের ভেতর শেলে ঢুকতে পারবেন।  এখন ইশেলে $  এর পরে  cd লিখে এন্টার চাপুন। এখন pwd লিখে এন্টার চাপলে একটি পাথ লেখা উঠবে। এই পাথ আপনার হোম ডাইরেক্টরি। এখানে .emacs ফাইল অর্থাৎ ইম্যাক্স এর কনফিগারেশন ফাইল থাকার কথা।যদি না থাকে তাহলে আপনাকে এই ফাইল বানাতে হবে। Control-x Control-f লিখে ~/.emacs ওপেন করে সেভ করলেই ফাইল তৈরী হয়ে যাবে । ~/ মানে হোম ডাইরেক্টরি। আপনার যাবতীয় কনফিগারেশন এই ফাইলে রাখতে হবে।

ইম্যাক্স : ডাউনলোড

মাইক্রোসফট উইন্ডোজের জন্য ইম্যাক্স ডাউনলোড করূন এই লিঙ্ক থেকে : http://mirrors.ispros.com.bd/gnu/windows/emacs/ অথবা ডায়রেক্ট ডাউনলোডের জন্য এই লিঙ্কে ক্লিক করুন। এক্সট্রাক্ট করে bin ফোল্ডারে runemacs.exe ফাইল ওপেন করে ব্যবহার করুন ইম্যাক্স।

প্রোগ্রামিং : শুরু করার জন্য যা লাগবে

প্রোগ্রামিং শুরু করতে গেলে যে প্রশ্নটি সবার প্রথমে আসে তা হল কিভাবে প্রোগ্রামিং শুরু করব। কিছুটা অসুবিধার সম্মুখিন হতে হয়  কোড কোথায় লিখতে হবে তা নিয়ে। এর সোজা উত্তর হল, কোড লিখতে হবে নোটপ্যাডে। নোটপ্যাড একটি এডিটর। যে কোন এডিটরে কোড লিখলেই হবে (যেমন ইম্যাক্স)। কিন্তু কোড লিখার পর সেটা কম্পিউটারকে বুঝানোর জন্য কম্পাইলার লাগে। কম্পাইলার হিসেবে mingw ইউস করতে পারেন। mingw ডাউনলোড করতে পারবেন এই লিঙ্ক থেকে। কম্পিউটার ৩২ বিট হলে এই লিঙ্ক থেকে,আর ৬৪ বিট হলে এই লিঙ্ক থেকে ডাইরেক্ট ডাউনলোড করুন।

এর পরের কাজ mingw ইন্সটল করা। এখানে শুধু ৩২ বিট windows xp তে কিভাবে ইন্সটল করতে হবে তা বলা হল। mingw এর ফোল্ডার c:\ ড্রাইভ এ এক্সট্রাক্ট করলেই হবে। 7-zip সফটওয়ারের মাধ্যমে এক্সট্রাক্ট করা সম্ভব। তখন দেখা যাবে সি ড্রাইভে mingw নামে একটি ফোল্ডার তৈরী হয়েছে,এবং mingw ফোল্ডারের ভেতর bin নামে একটি ফোল্ডার আছে। তারপরের কাজ হচ্ছে কন্ট্রোল প্যানেলে গিয়ে system ওপেন করা,তারপর system properties এর advanced ট্যাব এ ক্লিক গিয়ে environment variable এ ক্লিক করা। তারপর path নামে যে লাইন পাওয়া যাবে,তা এডিট করে একটি ;(সেমিকোলন) বসানো। এরপর mingw এর বিন যে ফোল্ডারে আছে ,তার path যোগ করা,অর্থাত C:\mingw\bin যোগ করা। ভুলেও অন্য কিছু ডিলিট করা যাবে না।  এরপর কম্পিউটার রিস্টার্ট করলেই কাজ শেষ।

আপনি আপনার ইউসারনেম এর ফোল্ডারে গিয়ে নিচের সি কোডটি নোটপ্যাডে লিখুন।

#include<stdio.h>
int main(void)
{
    printf("hello world\n");
    return 0;
}

এটি hello.c ফাইল নামে সেভ করুন। এরপরের কাজ হচ্ছে কম্পাইল করা। এখন, start এ ক্লিক করে run এ cmd লিখে এন্টার চাপুন। কমান্ড প্রোম্পট আসবে।  কমান্ড প্রোম্পটে যদি এরকম থাকে যে C:\Documents and Settings\username(আপনার ইউসারনেম),তাহলে কম্পাইলার ফাইল খুজে পাবে এবং কাজ করবে। আর যদি তা না থাকে তাহলে cd “C:\Documents and Settings\username” (আপনার ইউসারনেম) লিখে ডাইরেক্টরি চেঞ্জ করতে পারেন। cd কমান্ডের মানে হল change directory। অর্থাৎ নিচে ঠিক যেভাবে ডাবল কোটসহ দেয়া আছে সেভাবে কমান্ড প্রোম্পটে লিখুন


cd "C:\Documents and settings\username"

এখন  hello.c  ফাইলটি যদি C:\Documents and settings\username ফোল্ডারে থাকে তাহলে কম্পাইল করা যাবে। কম্পাইল করার জন্য কমান্ড প্রোম্পটে লিখুন

gcc -o hello.exe hello.c

লিখে এন্টার চাপুন। কম্পাইল হয়ে যাবে। তারপর কমান্ড প্রোম্পটে hello.exe লিখে এন্টার চাপুন। hello world লেখা উঠবে। অর্থাৎ কম্পাইলারের সফল ইন্সটলেশন কমপ্লিট।

আর এই ইন্সটলেশন যদি না করতে পারেন তাহলে কোডব্লকস আই.ডি.ই ব্যবহার করতে পারেন। এটা ইন্সটলেশনের পুরো পদ্ধতি নিচের লিঙ্কে ভিডিও সহ দেয়া আছে।

http://cpbook.subeen.com/2011/08/blog-post_06.html

http://cpbook.subeen.com/2011/08/blog-post_07.html

আর কোডব্লকস আই.ডি.ই ইন্সটলেশন ভিডিও

http://cpbook.subeen.com/2012/12/codeblocks-installation.html

শুরু করার আগে নিচের আর্টিকেল পড়ে দেখতে পারেন।

http://mukto-mona.com/bangla_blog/?p=32017